ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বাংলাঃ ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আরবীঃ ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
  1. Lead 1
  2. Lead 2
  3. অপরাধ
  4. অর্থনীতি
  5. আইন-আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আরো
  8. ইসলামিক
  9. কবিতা
  10. কৃষি সংবাদ
  11. খুলনা
  12. খেলাধুলা
  13. চট্টগ্রাম
  14. ছড়া
  15. জাতীয়

১২০ টাকার দ্বন্দ্বে দিনমজুরকে কুপিয়ে হত্যা, গ্রেফতার ২

নোয়াখালী প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১২:২৯ পি.এম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩
Link Copied!

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে দিনমজুর মো.সোহেল (৩০) হত্যা মামলার দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার ফারুক হোসেন ওরফে সোহেল (২২) চৌমুহনী পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ডের আলীপুর এলাকার আজগর হাজী বাড়ির মো.বাহারের ছেলে ও একই বাড়ির আমির হোসেন ওরফে মানিকের ছেলে মো.আমিনুল ইসলাম ওরফে মাহফুজ (১৯)।

মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতের দিকে চট্টগ্রামের হাটহাজারী, রাউজান ও সিএমপির বায়েজিদ বোস্তামি থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে বেগমগঞ্জ থানার পুলিশ। এর আগে, গত ৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে চৌমুহনী পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ডের আলীপুর এলাকার বলির দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে একই দিন রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত মোহাম্মদ সোহেল উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ নাজিরপুর গ্রামের মফিজ উল্যাহ মিয়ার বাড়ির মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, গত ৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে চৌমুহনী পৌরসভার আলীপুর এলাকার বলির দোকানের সামনে কাজের ১২০ টাকা নিয়ে ৩ নম্বর ওয়ার্ডের আলীপুর গ্রামের ঠাকুর বাড়ির বাহারের ছেলে সোহেলের (২৮) সঙ্গে মোহাম্মদ সোহেলের কথা-কাটাকাটি হয়। পরে সোহেলসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজন যুবক লোহার রড়,স্ট্যাম্প দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে এবং দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মাথায় কুপিয়ে তাকে গুরুতর জখম করে। পরে তার আত্মীয়স্বজন খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মোহাম্মদ সোহেলকে উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠায়। ঢাকা মেডিকেলে নেওয়ার পর একই দিন রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নোয়াখালীর পুলিশ সুপার (এসপি) মো.শহীদুল ইসলাম বলেন, সোহেল হত্যা মামলার দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার আসামিদের আদালতে সোপর্দ করা হয়। আসামি ফারুক হোসেন ওরফে সোহেল আদালতে ১৬৪ ধারায় দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন।