ঢাকা রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
বাংলাঃ ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
আরবীঃ ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি
  1. Lead 1
  2. Lead 2
  3. অপরাধ
  4. অর্থনীতি
  5. আইন-আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আরো
  8. ইসলামিক
  9. কবিতা
  10. কৃষি সংবাদ
  11. খুলনা
  12. খেলাধুলা
  13. চট্টগ্রাম
  14. ছড়া
  15. জাতীয়

রাজশাহীতে কথিত সাংবাদিক নামধারী চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

রাজশাহী অফিস:
প্রকাশিত: ৫:৩৪ পি.এম, ৩ মার্চ ২০২৪
Link Copied!

কথিত সাংবাদিক নামধারী চাঁদাবাজ বিশাল, সন্ত্রাসী রানা ও তার ভাই কিশোর গ্যাং-এর লিডার ফালাকের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে রাজশাহী মহানগরীতে ভুক্তভোগীদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রবিবার (৩ মার্চ) বিকাল সাড়ে ৪টায় মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার রেলগেইট মোড়ে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানবন্ধনে বক্তরা বলেন, মহানগরীর কলোনী এলাকায় দীর্ঘ কয়েকবছর যাবত সাংবাদিক নামধারী চাঁদাবাজ বিশালের নেতৃত্বে একটি চাঁদাবাজ চক্র বিভিন্ন উসিলায় চাঁদাবাজি করে আসছে। চাঁদা দিতে অপারগতা জানালে তারা নিউজের হুমকি ও পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে দেয়ার হুমকি ও বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে। এরই মধ্যে আনোয়ারা বেগম রিনা নামের এক নারীর জামাইয়ের কাছে চাঁদা না পেয়ে বিশালের নেতৃত্বে তাদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করা-সহ তার মেয়ে ও জামাইকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করা হয়েছে রানা ও তার ভাই। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী আনোয়ারা বেগম রিনা বাদী হয়ে রাজশাহীর বিজ্ঞ আদালতে বিশাল-সহ ৭জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেছেন। বিশাল চক্রের কাছে ধরাশয়ী হয়েছেন কলোনী এলাকার রমেলা বেগম, দিলারা বেগম, শ্যামলী বেগম, সুমি বেগম-সহ প্রায় ২০জন নারী। এরই প্রতিবাদে মানবন্ধনে উপস্থিত ছিলেন ৫০জন-৬০জন নারী পুরুষ।
সম্প্রতী অলোকার মোড়ে অবস্থিত ব্রাইটন নামের একটি প্রতিষ্ঠানের মালিক মোঃ আলি হোসেন সুমন জানান, গত (২ মার্চ) মহানগরীর শালবাগান পাওয়ার হাউজ মোড়ে তার একটি ক্ষুদ্র সেলাই কারখানা রয়েছে। যেখানে এলাকার বেকার এবং নিম্নশ্রেণীর পুরুষ ও অসহায় মহিলারা কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকে। ওই প্রতিষ্ঠানটি তাদের দ্বারাই পরিচালিত হচ্ছে। সেখানে সাংবাদিক নামধারী বিশাল ও তার কয়েকজন সহযোগী কারখানায় গিয়ে রাজশাহী মহানগর প্রেসক্লাবের নামে আমার একজন পার্টনার ও একজন কর্মচারী কাছে ৫০হাজার চাঁদা দাবি করে। তারা চাঁদা দিতে অস্বিকার করলে নিউজ করবো বলে হুমকি দেয়। তিনি আরও বলেন, আমাদের প্রতিষ্ঠান অবৈধ না। তাহলে চাঁদা দিতে হবে কেন? তারপরও থেমে থাকেনি বিশাল। ব্লাকমেইল করার লক্ষ্যে উল্টা-পাল্টা লিখে শনিবার অনলাইন নিউজ পোর্টালে নিউজ করেছে। এটা কি ধরনের হয়রানী? আমি এই কথিত সাংবাদিক বিশাল ও তার সহযোগীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। এ ব্যপারে আরএমপি পুলিশ কমিশনার মহাদয়ের সূদৃষ্টি কামনা করছেন বলেও জানান তিনি।